বিশ্বের সবচেয়ে ভীতিকর দেশ মিয়ানমার

বিশ্বের চলতি বছরের ভীতিকর দেশ মিয়ানমার। ব্রিটিশ সাময়িকী দ্য ইকোনোমিস্ট সংক্ষিপ্ত এই তালিকা প্রকাশ করেছে। চলতি বছর রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের কারণে মিয়ানমারকে ভীতিকর দেশ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। ২০১৩ সাল থেকে বড়দিন উপলক্ষে ‘কান্ট্রি অব দ্য ইয়ার’ প্রকাশ করে আসছে সাময়িকীটি।

এবারের ‘কান্ট্রি অব দ্য ইয়ার’ এর হওয়ার শক্তিশালী অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ। মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার হয়ে ৬ লাখের বেশি পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ আশ্রয় দিয়েছে। ইকোনোমিস্ট বলেছে, বাংলাদেশ দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নতি লাভ করেছে। দারিদ্র্যতার হারও কমেছে। কান্ট্রি অব ইয়ার হয়েছে ফ্রান্স।

মিয়ানমারে হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে বসবাস করে আসা সংখ্যালঘু একটি জাতিগোষ্ঠীর নাম রোহিঙ্গা। এরা মিয়ানমারের নাগরিক হিসেবে স্বীকৃত ছিল। কিন্তু ’৮২ সালে জান্তা সরকার তাদের নাগরিকত্ব কেড়ে নেয়ার পর তারা হয়েছে নিজ দেশে পরবাসী। দীর্ঘ ৫ দশকেরও বেশি সময় পূর্ব থেকে মিয়ানমার সরকার এবং সে দেশের সংখ্যাগুরুরা উগ্র সদস্যরা রোহিঙ্গাদের বাঁকা চোখে দেখতে শুরু করে।

আর তখন থেকেই রোহিঙ্গাদের এ অঞ্চলে আগমন শুরু। গড়তে থাকে বসতি। সময় যতই গড়িয়েছে রোহিঙ্গাদের ওপর দমন-নিপীড়ন এবং বর্বরোচিত হামলাসহ এমন কোন হামলা নেই যা চলেনি। ফলে রোহিঙ্গাদের সে দেশের বিশেষ রাখাইন রাজ্যে বেঁচে থাকার সংগ্রামের সঙ্কট গভীর থেকে গভীরতম দিকে ধাবিত হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here