Home > বিশ্বজুড়ে > নেপাল: ভূমিকম্প শুধু নেয়নি, দিয়েও গেছে কিছু

নেপাল: ভূমিকম্প শুধু নেয়নি, দিয়েও গেছে কিছু

অবশেষে নেপালে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে নয়া সংবিধান প্রণয়নের বিষয়ে ঐতিহাসিক চুক্তি সই হয়েছে। এর ফলে নেপাল আটটি প্রদেশে বিভক্ত হবে। তবে চালু থাকবে সংসদীয় ব্যবস্থাই।

নয়া সংবিধান প্রণয়নের বিষয়ে দেশটির রাজনৈতিক অঙ্গনে গত কয়েক বছর ধরে যে অচলাবস্থা বিরাজ করছিল এর মধ্যদিয়ে তার অবসান ঘটলো বলে মনে করা হচ্ছে। এ চুক্তি সইয়ের পেছনে মূল ভূমিকা পালন করেছে গত ২৫ এপ্রিলের ভয়াবহ ভূমিকম্প। ওই দুর্যোগ রাজনৈতিক দলগুলোকে নতুন করে ঐক্যের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধির সুযোগ করে দিয়েছে।

দেশটির দৈনিক ‘নাগরিক’ পত্রিকার সম্পাদক গোনা রাজ লুইটেল বলেছেন, “জনগণ রাজনৈতিক দলগুলোর বিষয়ে হতাশ হয়ে পড়েছিল। তারা ভাবছিল আর কখনোই হয়তো সংবিধান প্রণয়ন সম্ভব হবে না। কারণ রাজনীতিবিদরা কখনোই ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারবে না। কিন্তু ভূমিকম্প সব কিছু পাল্টে দিয়েছে। দেশ পুনর্গঠনের জন্য সবারই যে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা উচিত ভূমিকম্পের পর রাজনৈতিক দলগুলো তা উপলব্ধি করতে পেরেছে।”

নেপালের তথ্যমন্ত্রী মিনেন্দ্র রিজাল বলেছেন, “রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে যে চুক্তি হয়েছে তা একটি বড় অগ্রগতি। দুর্যোগ আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে।”

চুক্তি অনুযায়ী আগামী মাসে খসড়া সংবিধান তৈরি করা হবে। এরপর তা সংসদে দুই-তৃতীয়াংশ ভোটে পাস হবে। আটটি প্রদেশের সীমানা নির্ধারণ নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা থাকলেও দেশটির সব মহলই ওই চুক্তিকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছে।

নেপালে গত ২৫ এপ্রিল ও ১২ মে’র ভয়াবহ ভূমিকম্পে আট হাজার সাতশ’রও বেশি মানুষ মারা গেছে। ধ্বংস হয়েছে প্রায় পাঁচ লাখ বাড়ী। তেহরান রেডিও