মুখের দুর্গন্ধের জন্য দায়ী যেসব খাবার

আমাদের প্রায় বেশিরভাগই মুখের দুর্গন্ধে ভুগে থাকেন। সাধারণত দীর্ঘ সময় ধরে কথা না বললে মুখে এক ধরনের দুর্গন্ধ হয়। আবার দাঁতের নানা সমস্যার কারণেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। তখন সবার সামনেই একটা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়। শুধু দাঁতের সমস্যার কারণে যে মুখের দুর্গন্ধ হয় এমনটি নয়। বরং কিছু খাবার আছে যা খেলেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। কাজেই দুর্গন্ধ এড়াতে এসব খাবার পরিত্যাগ করাই বেশি ভালো। সবচেয়ে বেশি ভালো হয় যদি খাবারের পরপরই দাঁত ব্রাশ করা যায়। তাতে দুর্গন্ধ এড়ানোর পাশাপাশি মুখে একটা সতেজ ভাব বজায় থাকে।

জেনে নিন মুখে দুর্গন্ধের জন্য দায়ী কোন খাবারগুলো-

দুগ্ধজাত পণ্য
দুধ ও দুধ থেকে তৈরি নানা খাবার মুখের দুর্গন্ধের জন্য বেশি দায়ী। কারণ দুধে ল্যাকটোস থাকায় তা অনেকেরই সহ্য হয় না। ফলে মুখে দুর্গন্ধ হয়। কাজেই দুর্গন্ধ দূর করতে এসব খাবার এড়িয়ে চলাই বেশি ভালো।

কফি
এতে অ্যাসিডিটি ও নানা প্রাকৃতিক এনজাইম রয়েছে যা লালার সঙ্গে মিশে মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে। এরপর তা পাকস্থলিতে প্রভাব বিস্তার করে। ফলে নানা রকম সমস্যার পাশাপাশি মুখেও দুর্গন্ধ হয়।

রসুন
রসুন দেহের জন্য উপকারি হলেও এটি মুখে দুর্গন্ধ তৈরি করে। কারণ রসুনে সালফাইড রয়েছে যা বিপাক ক্রিয়ার সময় রক্তে মিশে গিয়ে মুখে দুর্গন্ধ হয়। কাজেই দুর্গন্ধ এড়াতে এটিও এড়িয়ে চলা ভালো।

অ্যালকোহল
অ্যালকোহল পানে মুখগহ্বরে লালার প্রবাহ কমে যায়, ফলে মুখের ভেতর শুষ্কতা তৈরি হয়ে দুর্গন্ধ হয়। কাজেই মুখের দুর্গন্ধ এড়াতে এটি থেকেও বিরত থাকুন।

মসলাযুক্ত খাবার
মসলাযুক্ত যে কোন ধরনের খাবারই মুখে দুর্গন্ধ তৈরি করে। তাই যতটা সম্ভব এসব খাবার কম খাওয়াই ভালো।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দাঁতের নানা সমস্যার কারণে মুখে দুর্গন্ধ হয়। কাজেই দাঁতের যে কোন সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। পাশাপাশি দুর্গন্ধ এড়াতে উপরোক্ত খাবারগুলো এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। তাতে মুখের দুর্গন্ধ চিরতরে চলে যাওয়ার পাশাপাশি স্বস্থিতেও থাকবেন।

তথ্যসূত্র: ওয়েবসাইট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here