ডাঁটার নাম শজনে, গুণ জানে তার কজনে

Dathaডা. সজল আশফাক :
লম্বা সবজি শজনে ডাঁটা। অনেকের কাছেই খুব প্রিয়। শজনে ডাঁটায় রয়েছে প্রচুর আঁশ। রয়েছে ব্যথানাশক উপাদান। শজনেকে বলা হয় খনিজ শক্তির ভাণ্ডার। সবচেয়ে বড় কথা হল, শজনের মধ্যে রয়েছে ঔষধি গুণ

পেটের জন্য উপকারী
আঁশজাতীয় খাবার খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়। হজমেও সহায়ক শজনে। এ কারণে হাইপার অ্যাসিডিটি, পেপটিক আলসারের কষ্টেও উপশম দেয় এই সবজি। ক্ষুধা বাড়ানো, মুখের রুচি ফেরানোর কাজ করে শজনে।

শজনে যখন মেডিসিন
শজনেতে রয়েছে ব্যথানাশক উপাদান, যা শরীরের ব্যথা কমায়। ফলে কোনো অপারেশন কিংবা আঘাতের পর শজনে ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে ভূমিকা রাখে। এ কারণে যাদের নিয়মিত গলাব্যথা, ত্বকের সংক্রমণ কিংবা কাশি হয় তাদের জন্য শজনে প্রতিরোধকারী হিসেবে কাজ করতে পারে। ব্যতিক্রমী সবজি শজনের রয়েছে নানা ব্যবহার। প্যারাসাইট ধ্বংসে কার্যকর বলে সজনে কৃমিনাশক হিসেবেও কাজ করে। হাঁপানি, দীর্ঘমেয়াদি কাশি দূর করতে শ্বাসনালি প্রসারণকারী হিসেবে কাজ করে শজনে।

এত ভিটামিন! এত খনিজ!!
শজনে পাতায় রয়েছে কমলার চেয়ে সাত গুণ ভিটামিন সি, দুধের তুলনায় চার গুণ ক্যালসিয়াম এবং কলার চেয়ে তিন গুণ পটাসিয়াম ও দুধের চেয়ে দ্বিগুণ প্রোটিন, আর গাজরের চেয়ে চার গুণ ভিটামিন। শজনের ভিটামিন ‘সি’ ত্বকের খসখসে বা রুক্ষভাব দূর করে। বাড়তি ক্যালসিয়ামের কারণে শজনে ডাঁটার মাধ্যমে হাড়, মাংসপেশি, হাড়ের ভেতরের অস্থিমজ্জা পুষ্টি পায়।

মা ও শিশুর পরিচর্যায়
বাড়তি ক্যালসিয়াম থাকার কারণে শিশুর হাড় গঠনে কাজে আসে শজনে। গর্ভবতী এবং স্তনদানকারী মায়েদের জন্য শজনে এবং বিশেষ করে শজনে পাতা খুবই কাজে আসে। মায়ের বুকের দুধ নিঃসরণ বাড়াতে সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি প্রসূতির ক্যালসিয়াম, আয়রন এবং ভিটামিনের অভাব পূরণে বিশেষভাবে সহায়তা করে। এ ছাড়া প্রসবের পর জরায়ু সঙ্কোচনে ভূমিকা রাখার মাধ্যমে প্রসূতিকে দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে কাজ করে শজনে। বহুবিধ উপকারের জন্য শজনে ডাঁটা হোক আপনার নিয়মিত সবজি।

সহযোগী অধ্যাপক, নাক কান ও গলা বিভাগ
হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here