ড্রাই ওয়াশ কী? কিভাবে করা হয়?

ড্রাই ওয়াশ

ধোবেন অথচ কাপড় শুকনো থাকবে। এ যেন অনেকটা সেই রকম, ‘আমার যেমন বেণী তেমনি রবে চুল ভেজাবো না।’ খটকার শুরু এখান থেকেই। তবে না, ব্যাপারটা ঠিক তেমন নয়।

তাহলে কেমন?

খুব সহজ ভাবে বলা যায়, ড্রাই ওয়াশ বা ক্লিনিং হলো এমন এক রকমের কাপড় ধোওয়ার পদ্ধতি যেখানে পানি ব্যবহার করা হয় না। সম্ভবত পানির উপস্থিতি থাকে না বলেই ওই ‘ড্রাই’ কথাটি এসেছে। আধুনিক ড্রাই ক্লিনিং পদ্ধতির জনক হলেন থমাস এল জেনিংস। তিনিই এই পদ্ধতির পেটেন্ট পেয়েছেন।

পানির পরিবর্তে?

ড্রাই ওয়াশে পানির পরিবর্তে অন্য একধরনের দ্রাবক বা সলভেন্ট ব্যবহার করা হয়। তার মানে এই ক্ষেত্রে কাপড়কে পানি ডোবানো হয় না ঠিকই তবে ওই দ্রাবকটিতে ভেজানো হয়। এই দ্রাবকটির নাম টেট্রাক্লোরোইথিলিন (পারক্লোরোইথিলিন)। বিকল্প দ্রাবক হিসেবে অবশ্য ট্রাইক্লোরোইথেন এবং পেট্রোলিয়াম স্পিরিটও ব্যবহৃত হয়।

পদ্ধতি

একটি ড্রাই ওয়াশ মেশিন বাড়িতে ব্যবহার করা ড্রায়ার-সহ ওয়াশিং মেশিনের মতোই। এই মেশিনের বাকেট ক্যাপাসিটি ১০-৪০ কেজির মতো। ধোওয়ার সময় বাকেটির এক তৃতীয়াংশ দ্রাবক দিয়ে ভরে নেওয়া হয়। ড্রাই ওয়াশে যে সমস্ত দাগ উঠে যায় এমন নয়। সেক্ষেত্রে কাপড়কে বিশেষ ধরনের স্টেন-রিমুভিং লিকুইড দিয়ে ধোওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here