ফাঁসির মঞ্চ বেয়েই বাংলাদেশে ইসলামের পতাকা উড়বে : শিবির সভাপতি 

ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আবদুল জব্বার বলেছেন, ইসলামী আন্দোলনের নেতাকর্মীরা ফাঁসির মঞ্চ বা জালিমের কারাগারকে ভয় পায় না। ফাঁসির মঞ্চ বেয়েই বাংলাদেশে ইসলামের পতাকা উড়বে।
ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারিয়েট বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় রাজধানীর একটি মিলনায়তনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সেক্রেটারি জেনারেল আতিকুর রহমানের পরিচালনায় বৈঠকে সেক্রেটারীয়েট সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
শিবির সভাপতি বলেন, ষড়যন্ত্র করে জননেতা কামারুজ্জামনকে হত্যা করতে ফ্যাসিবাদী সরকার কীভাবে উঠেপড়ে লেগেছে তা জনগণের কাছে পরিস্কার। সরকার আব্দুল কাদের মোল্লা, কামারুজ্জামানদের ভয় পায় বলেই তাদেরকে হত্যার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। ইতিহাস ঠিকই একদিন কথা বলবে। আব্দুল কাদের মোল্লা, কামারুজ্জামানদের নাম বাংলাদেশের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। ঘাতক হিসেবে আজকের প্রধানমন্ত্রীসহ ষড়যন্ত্রকারী সবাইকেই বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।
তিনি বলেন, জননেতা কামারুজ্জামানের জীবন বাংলাদেশের প্রত্যেক সচেতন মানুষের কাছে পরিস্কার। ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি হিসেবেও এই মহান নেতা যোগ্যতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার ক্ষুরধার লেখনির মাধ্যমে সামাজিক- সাংস্কৃতিক, ইসলাম-ইসলামী বিশ্বসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় দেশের মানুষ জানার সুযোগ পেয়েছে। ছাত্রজনতার প্রিয় এই নেতাকে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝোলানোর এই প্রয়াস সরকারের জন্যই বুমেরাং হবে।
তিনি আরো বলেন, আওয়ামী অপশাসনের বাংলাদেশ আজ খাদের কিনারে এসে দাঁড়িয়েছে। বিচারের নামে যে অবিচারের সংস্কৃতি আওয়ামী লীগ দেশে চালু করেছে, তা দেশের জন্য ভয়াবহ সঙ্কেত দিচ্ছে। দল হিসেবে আওয়ামী লীগকে, এই দলের নেতাদেরও এর ফল ভোগ করতে হবে। যে বন্দুকের নল দিয়ে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে বসে আছে, সেই বন্দুকের নল সময়ের ব্যবধানেই ঘুরে যাবে। হত্যার অভিযোগে আজকের দাম্ভিক আওয়ামী নেতাদেরকেই হয়তো ফাঁসিকাষ্ঠে ঝোলানো হবে।
শিবির সভাপতি অন্যায়ভাবে সংগঠনের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি কামারুজ্জামানকে হত্যার ষড়যন্ত্র থেকে সরে আসতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
বিজ্ঞপ্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here