সৌদিতে যৌন হয়রানির আইন ও শাস্তি

27
সৌদিতে জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে যৌন হয়রানি

সৌদি আরবে জাতীয় দিবস (ন্যাশনাল ডে) উদযাপন অনুষ্ঠানে নারীকে যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটেছে। এ অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

আল-আলাবিয়ার খবরে বলা হয়েছে, গত ২৩ সেপ্টেম্বর সৌদি আরবের ‘ন্যাশনাল ডে’ ছিল। এদিন তায়েফ শহরে ২০ বছর বয়সী এক যুবক একজন নারীকে যৌন হয়রানি করেন। অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া সৌদি নাগরিকরাই তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

সৌদিতে যৌন হয়রানি সংক্রান্ত আইন
সৌদিতে যৌন হয়রানি সংক্রান্ত আইন : ২০১৮ সালে এ আইন কার্যকর হয়…

এদিকে যৌন হয়রানির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিওতে সৌদি ঐতিহ্যবাহী ‘আবয়া’ পোশাক পরিহিত এক নারীকে দেখা যায়। ওই নারীর পেছন থেকে এসে এক যুবক তাকে স্পর্শ করে দ্রুত পালিয়ে যান।

সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃত যুবককে কাস্টডিতে রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে প্রাথমিক আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। তাকে পাবলিক প্রসিকিউটরের কাছে সোপর্দ করা হবে।

সৌদিতে যৌন হয়রানির শাস্তি

এই ঘটনার পর সৌদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়- শারীরিক কিংবা অন্যভাবে নারীদের হেনস্তার কী শাস্তি হতে পারে তার একটি তালিকা প্রকাশ করেছে।

সৌদি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের বিধান অনুসারে, শারীরিক বা মৌখিকভাবে অন্যের সঙ্গে যৌন সংক্রান্ত কোনো কাজ বা সংকেত দিলে সেটা যৌন হয়রানি হিসেবে বিবেচিত হবে।

এ ধরনের অপরাধে দোষী প্রমাণিত হলে তাকে দুই বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড এবং ১ লাখ সৌদি রিয়াল পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে।

আর নিচের অপরাধ সাপেক্ষে দ্বিতীয়বার যৌন হয়রানি করলে ৫ বছর পর্যন্ত জেল এবং ৮০ হাজার মার্কিন ডলার পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

  • ভুক্তভোগী শিশু কিংবা শারীরিক প্রতিবন্ধী হলে।
  • কোনো দুর্ঘটনা কিংবা প্রাকৃতিক বিপর্যের সময় এ ধরনের অপরাধ করলে।
  • স্কুল, কর্মক্ষেত্র, আশ্রয় কেন্দ্র কিংবা কেয়ার হোমে এ ধরনের অপরাধ করলে।
  • অপরাধী ও ভুক্তভোগী একই জেন্ডার হলে।
  • ভুক্তভোগী ঘুম অথবা অবচেতন থাকা অবস্থায় তাকে যৌন হয়রানি করলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here