শ্রীনির উপর ক্ষেপেছেন ভারতের ক্রিকেট কর্তারা

শ্রীনিবাসনের ওপর কে না ক্ষেপে আছে? বিশ্ব ক্রিকেট মঞ্চের এক খলনায়ক এই শ্রী নিবাসন ওরফে শ্রীনি। বিশ্বকাপ ক্রিকেটে তিনি গায়ের জোরে না-কে হ্যাঁ আর হ্যাঁকে না করিয়েছেন। আর তার দাপটে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাংলাদেশ।

কিন্তু এবার বুঝি সময় এসেছে পাল্টা আঘাতের। তবে সে আঘাত বাংলাদেশের পক্ষ থেকে নয়। শ্রীনি নিজেই নিজের বিপদের পথ তৈরি করে রেখেছিলেন। হেন অপকর্ম নাই যা করেন নি। তারই একটি ছিলো চর লাগিয়ে তথ্য চুরি। তাও খোন নিজ দেশের ক্রিকেট ‍কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে।

অনেক দিন ধরেই ঘরের শত্রু বিভীষণ হিসেবে শ্রীনির নাম উচ্চারিত হচ্ছিলো। ভারতীয় ক্রিকেটের কর্তাব্যক্তিরাও তক্কে তক্কে ছিলেন। এবার ধরে ফেলেছেন শ্রীনির জারিজুরি। ধরা পড়েছে লন্ডন থেকে জাসুস (গুপ্তচর) ভাড়া করে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিবিসিআই)’র সদস্যদের ওপর চরগিরি করিয়েছেন এই শ্রীনি। এ জন্য ওই চরদের ১৪ কোটি রুপি দিয়েছেন। শিগগিরই কলকাতায় এ নিয়ে বৈঠক হতে যাচ্ছে। সেখানে ভারতীয় ক্রিকেটের অপর কর্তারা শ্রীনিকে জাপটে ধরবেন সে আর বলার অপেক্ষা রাখেনা।

এটি হতে যাচ্ছে বিসিসিআই’র নতুন প্রধান ভারতীয় ক্রিকেটের কাঙ্খিত ব্যক্তিত্ব জগমোহন ডালমিয়ার সভাপতিত্বে প্রথম বৈঠক। ওই বৈঠকে চ্যাম্পিয়নস লিগ টি-টোয়েন্টির ভবিষ্যত আর চেন্নাই সুপার কিংস’র মূল্য ফাঁকির বিষয়েও কথা হবে। ধারনা করা হচ্ছিলো টিম ইন্ডিয়ার নতুন কোচ নিয়োগ নিয়ে আলোচনা হবে এই বৈঠকে। রিপোর্টগুলোতে বলা হচ্ছে বাঙালি ক্রিকেটার সৌরভ ‍গাঙ্গুলিই হতে যাচ্ছেন ডানকান ফ্লেচারের স্থলাভিষিক্ত। তবে বিষয়টি এখনো স্রেফ প্রাথমিক পর্যায়েই রয়েছে। আর আসন্ন বৈঠকে সে নিয়ে আলোচনাও হচ্ছে না।

সে যাই হোক আলোচনার মূল এজেন্ডায় থাকছে সদ্যসাবেক বিসিসিআই প্রধান এন শ্রী নিবাসন প্রসঙ্গ। চেন্নাই সুপার কিংসের মূল্য নিয়ে কারসাজির বাইরেও তার বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ হয়ে আসছে এই বিসিসিআই’রই কোটি কোটি রুপি ব্যয় করে এরই সদস্যদের ওপর গুপ্তচরগিরি করানো। লন্ডনভিত্তিক একটি ব্যাক্তিগত চর প্রতিষ্ঠানকে এই অর্থ দিয়েছেন তিনি। এর বিনিময়ে তারা বিসিসিআই’র সদস্যদের মোবাইল ফোন ট্যাপিং ও ই-মেইল গুলো ট্র্যাকিং করেছে।

সংবাদমাধ্যমগুলো নিশ্চিত হয়েছে, বিসিসিআই এ বিষয়ে একটি আনুষ্ঠানিক তদন্তের দিকেই যাচ্ছে। এই তদন্ত কমিটির প্রধান হতে যাচ্ছেন অনুরাগ ঠাকুর। তদন্তে দেখা হবে কেনই বা সদস্যদের ওপর এই যাসুসি করা প্রয়োজন হলো। আর কেই বা দিয়েছিলো এ জন্য অর্থ খরচের অনুমোদন।

তবে যাই হোক শ্রীনির বেইজ্জতিটা নিশ্চয়ই হতে যাচ্ছে দেখার মতো বিষয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here