মিয়ানমারে কমপক্ষে ৬,৭০০ রোহিঙ্গাকে সহিংসভাবে হত্যা

মিয়ানমারে আগস্টে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার পর এক মাসে অন্তত ৬ হাজার ৭’শ রোহিঙ্গা হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বেসরকারি দাতব্য প্রতিষ্ঠান মেদসঁ সঁ ফ্রঁতিয়ে (এমএসএফ)।
বাংলাদেশে অবস্থানরত শরণার্থীদের ওপরে করা এক জরিপ শেষে এই তথ্য জানায় সংস্থাটি।
এমএসএফ বলছে, মিয়ানমারের কর্তৃপক্ষ পরিচালিত “ব্যাপক সহিংসতার স্পষ্ট ইঙ্গিত” এটি।

মিয়ানমার সেনাবাহিনী “সন্ত্রাসবাদী”দের ওপর সহিংসতার দায় দিয়ে নিজেদের নির্দোষ দাবি করছে।

এমএসএফ’এর তথ্য অনুযায়ী, আগস্ট থেকে ৬ লক্ষ ৪৭ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

সংস্থাটির জরিপে বলা হয়েছে, ২৫ আগস্ট থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অন্তত ৯ হাজার রোহিঙ্গা মিয়ানমারে মারা যায়।

মেদর্স সঁ ফ্রতিয়ের জরিপভিত্তিক পরিসংখ্যান

এর মধ্যে অন্তত ৬ হাজার ৭’শ মৃত্যুর কারণ সহিংসতা, যার মধ্যে পাঁচ অথবা তার চেয়ে কম বয়সের শিশু ছিল ৭৩০ জন।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এর আগে বলেছে, নিহতের সংখ্যা ৪০০ যাদের মধ্যে অধিকাংশই মুসলিম জঙ্গী।

লক্ষাধিক শরণার্থী ফিরিয়ে নেবার ব্যাপারে নভেম্বরে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

এমএসএফ বলছে এই চুক্তি ‘বেশি আগে করে ফেলা’ হয়েছে। তারা বলছে এখনও রাখাইন থেকে পালিয়ে আসছে শরণার্থীরা। এমনকী এখনো সেখানে সহিংসতা অব্যাহত থাকার খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তারা বলছে রাখাইনে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনাকারীদের চলাফেরায় সীমাবদ্ধতা এখনও রয়েছে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here