কোয়ার্টার ফাইনালের জন্য শেষ লড়াই

গ্রুপ পর্বের শেষ সময়ের লড়াইয়ে এখন পৌঁছে গেছে বিশ্বকাপ । কোয়ার্টার ফাইনালের শেষ দুটি আসনের জন্য এখন রোববার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আরব আমিরাতের ও পাকিস্তান আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হবে।
ইতোমধ্যেই গ্রুপ-এ থেকে শেষ আটের চারটি দল নির্ধারিত হয়ে গেছে। এই গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে নিউজিল্যান্ডের সাথে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করা অপর তিনটি দল হলো অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলংকা ও বাংলাদেশ। তবে গ্রুপ-বি থেকে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের অবস্থান নিশ্চিত করলেও এখনো শেষ দুটি স্থানের জন্য ১৯৯২ সালের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান ও ১৯৭৫ ও ১৯৭৯ সালের বিশ্বকাপ জয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে আইসিসির সহযোগী দেশ আয়ারল্যান্ড অপেক্ষায় রয়েছে। আগামীকাল এ্যাডিলেডে পাকিস্তান বনাম আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচের ফলাফলের ভিত্তিতেই এই তিনটি দেশের ভাগ্য নির্ধারিত হবে। আট বছর আগে ২০০৭ সালে এই আইরিশদের কাছে পরাজিত হয়েই বিদায় নিয়েছিল পাকিস্তান। এই ম্যাচ পরাজয়ের পাশাপাশি আরেকটি বিষয় পাকিস্তানীদের দারুনভাবে আবেগ তাড়িত করেছিল। ম্যাচ হারের পরদিনই দলের কোচ বব উলমারকে তার হোটেলকক্ষে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়, যার রহস্য এখনো অনেকটাই অগোচরে রয়ে গেছে।
এর আগে রোববার দিনের প্রথম ম্যাচে নেপিয়ারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ মুখোমুখি হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের। ওয়েলিংটনে আগামী ২১ মার্চ নিউচিজল্যান্ডের মুখোমুখি হতে হলে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই ক্যারিবীয়দের।
গ্রুপ-এ থেকে গ্রুপের ছয়টি ম্যাচের মধ্যে সবকটিতে জিতে শীর্ষ দল হিসেবেই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। ১৯ মার্চ দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে ৯০ হাজার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ভারত এশিয়ান প্রতিবেশী বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে। শেষ ম্যাচে ভারত আজ জিম্বাবুয়েকে ৬ উইকেটে পরাজিত করে ছয় ম্যাচে শতভাগ সাফল্য নিয়ে গ্রুপ-এ’র শীর্ষ দল হিসেবে শেষ আটে পৌঁছে গেছে।
আজ দিনের অপর ম্যাচে হোবার্টে অস্ট্রেলিয়া ৭ উইকেটে স্কটল্যান্ডকে পরাজিত করে গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে নক আউট পর্বে উঠেছে। ২০ মার্চ এ্যাডিলেডে তৃতীয় কোয়র্টার ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার বিজয়ী দল। শ্রীলংকাকে গত সপ্তাহে ৬৪ রানে পরাজিত করে অস্ট্রেলিয়া নক আউট পর্ব নিশ্চিত করে। ঐ ম্যাচে অসিরা ৯ উইকেটে ৩৭৬ রান সংগ্রহ করেছিল। এর আগের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬ উইকেটে ৪১৭ রান করার পরে ২৭৫ রানের বিশাল জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। এসবই এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম ফেবারিট অস্ট্রেলিয়ার দূর্দান্ত ফর্মের নমুনা।
আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মুখোমুখি হবার আগে পাকিস্তান প্রথম দুটি ম্যাচে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে পরাজিত হবার পরে দক্ষিণ আফ্রিকা, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও জিম্বাবুয়েকে পরাজিত করেছে। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি কোনমতেই প্রতিশোধের নয় বরং সাবেক কোচ উলমারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের একটি অনন্য সুযোগ বলেই মনে করছেন ২০০৭ সালের দলটির একমাত্র সদস্য অভিজ্ঞ ইউনিস খান। ম্যাচটিকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে উল্লেখ করে ইউনিস বলেছেন পাকিস্তান ক্রিকেটে উলমারের অবদান অনস্বীকার্য। এই ম্যাচ জিতে উলমারের স্মৃতির প্রতি উৎস্বর্গ করতে চান ইউনিস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here