স্কার্ভি : লক্ষণ, কারণ ও প্রতিকার

208

স্কার্ভি মাঢ়ির খুব পরিচিত একটি রোগ। মোটামুটিভাবে ছোট-বড় সবাই মুখে মুখে এই রোগটির সাথে পরিচিত। শরীরে দীর্ঘ দিন ভিটামিন ‘সি’-এর অভাবে এ রোগ হয়।

কেন হয়?
প্রধানত শরীরে ভিটামিন ‘সি’-এর অভাবে স্কার্ভি হয়। তবে এটিই একমাত্র কারণ নয়। এর সাথে অন্যান্য ভিটামিন মিনারেলও কিছুটা যুক্ত থাকতে পারে। তা ছাড়া কিছু স্থানীয় কারণ যেমন মুখে প্রচুর প্লাক, ক্যালকুলাস (দাঁতের পাথর) থাকলে এর প্রকোপ আরো বেড়ে যায়।

কেন হয়?
শরীরে ভিটামিন ‘সি’ কোষের কোলাজেন ফাইবার তৈরি করে। ভিটামিন ‘সি’-এর অভাবে কোলাজেন ফাইবার দুর্বল হয়ে পড়ে। মাঢ়িতে অভ্যন্তরীণ রক্তপাত হয় এবং সংযোজক কলাগুলো রসাল ও ভঙ্গুর হয়ে পড়ে। এগুলো আরো খারাপ হতে থাকে যখন মুখে প্রচুর প্লাক-ক্যালকুলাস ও পচে যাওয়া খাদ্যচূর্ণ থাকে।

লক্ষণগুলো
• মাঢ়ির রঙ হয় টকটকে কালচে লাল।
• মাঢ়ির কিনারা ফুলে ফেঁপে ওঠে।
• মাঢ়ি হয় চকচকে আবরণে ঢাকা নরম এবং ভঙ্গুর। মাঢ়ির ওপরের আবরণ পচে যাওয়াতে আলগা আবরণ তৈরি হতে পারে।
• সামান্য আঘাতেই প্রচুর পরিমাণে রক্তপাত হয়।
• মাঢ়ি ও দাঁতের মধ্যকার দূরত্ব অনেক বেড়ে যায় ফলে সেখানে পকেট সৃষ্টি হয়।

চিকিৎসা
মাঢ়িতে এ রকম লক্ষণ দেখা দিলে দেরি না করে অভিজ্ঞ ডেন্টাল সার্জনের সহায়তা নিতে হবে। সাথে আরো যা করতে হবে-
• চিকিৎসকের নির্দেশমতো ওষুধ সেবন করতে হবে।
• নিয়মিত স্কেলিং পলিশিং করতে হবে।
• নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করতে হবে।
• প্রতিবার খাবার পর কুলি করতে হবে।
• মাঢ়ি ম্যাসাজ করতে হবে।
• দুই দাঁতের মাঝে জমে থাকা পচা খাবার ফসিং করতে হবে।
• উপযুক্ত মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।

এখন যুগের পরিবর্তনের সাথে খাওয়া-দাওয়ার পরিবর্তনও এসেছে। সবাই এখন ভাজা-পোড়া আর ফাস্টফুডের প্রতি বেশি আগ্রহ প্রকাশ করে। কিন্তু সব কিছুর পাশাপাশি নিয়মিত ফলমূল ও শাকসবিজ রাখলে খাবারে ভিটামিন ‘সি’-এর অভাব হবে না, ফলে অনেক রোগ থেকে আমরা সহজেই রেহাই পেতে পারি। নিয়মিত দাঁতের যত্ন নিন, নিজে সুস্থ থাকুন অন্যকেও সুস্থ থাকতে সাহায্য করুন। নির্মল হাসিতে মন ভরিয়ে দিন।

লেখিকা : ডাইরেক্টর ও ডেন্টাল সার্জন, নাহিদ ডেন্টাল কেয়ার, ১১৭/১, এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা। 
ফোন : ০১৭১২-২৮৫৩৭২

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here