Home > বাছাইকৃত > ‘সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় ব্লগার বিজয় খুন’

‘সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় ব্লগার বিজয় খুন’

সরকার ও রাষ্ট্রের পৃষ্ঠপোষকতায়ই ব্লগার অনন্ত বিজয় দাস খুন হয়েছে বলে দাবি করেছেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে সিলেটে ব্লগার ও বিজ্ঞান লেখক অনন্ত বিজয় দাস হত্যার প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘একদিকে ব্লগারদের খুনিরা গ্রেফতার হচ্ছে না অন্যদিকে রাষ্ট্রের পৃষ্ঠপোষকতায় রাজিব হত্যার খুনিদের রাতের আঁধারে জামিন দিয়ে বিদেশে পাঠানো হচ্ছে। এসব হত্যাকারীদের রাষ্ট্র ও সরকারই পৃষ্ঠপোষকতা করছে।’

ডা. ইমরান এইচ সরকার অভিযোগ করেন, ‘সরকারের ভেতরের লোকেরাই পাহারা দিয়ে এসব খুন করাচ্ছে এটা এখন স্পষ্ট। তা না হলে এত খুন সম্ভব নয়। সরকারের ভেতরে ঘাপটি মেরে থাকাদের পৃষ্ঠপোষকতাই খুনিদের গ্রেফতার করা হচ্ছে না।’

ইমরান আরো বলেন, নতুন নতুন ইস্যু সৃষ্টি করা হচ্ছে এসব ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য। হয়তো আরেকটা নতুন নাটক সাজিয়ে খুনিদের ধামাচাপা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে এবং সেটা ২ দিন পরেই করা হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘হুমায়ুন আজাদ হত্যার বিচার হলে ব্লগার রাজীব হত্যা হতো না। রাজীব হত্যার বিচার হলে অভিজিৎ, বাবু ও বিজয় হত্যা হতো না। এভাবেই সবাইকে হত্যা করা হচ্ছে রাষ্ট্রকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য।’

ইমরান বলেন, ‘এভাবে চলতে থাকলে হয়তো এমন একদিন আসবে যেদিন নিরাপত্তার জন্য বাংলাদেশের সবাইকে আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের নাগরিকদের মতো অস্ত্র হাতে নিতে হবে। রাষ্ট্র এখন ব্যর্থতার দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে।’

ইমরান এইচ সরকার ব্লগার অনন্ত বিজয় দাস হত্যার বিচারের দাবিতে বুধবার বিকেলে শাহবাগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মশাল মিছিল কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ফেরদৌসি প্রিয়ভাষিণী, নারী নেত্রী খুশি কবির, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের শম্পা বসু, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি খান আসাদুজ্জামান মাসুম প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা একটি মিছিল নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকা প্রদক্ষিণ করে আবারো শাহবাগে এসে শেষ করে।