ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো

বাংলাদেশ ব্যাংকসহ রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়নে আবারও উদ্যোগ নিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগকে চিঠি পাঠিয়েছে অর্থ বিভাগ। স্বতন্ত্র বেতন প্রণয়নের বিষয়ে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে একবার এবং বেতন কাঠামো প্রণয়ন সম্পন্ন হওয়ার আগ পর্যন্ত প্রতি মাসে একবার করে অগ্রগতির তথ্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ‘মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ অধিশাখা’কে জানাতে বলেছে অর্থ বিভাগ।

চিঠিতে বলা হয়েছে, যত দিন স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়ন করে বাস্তবায়ন করা সম্ভব না হবে, তত দিন পর্যন্ত নতুন বেতন কাঠামো অনুযায়ী ব্যাংকারদের বেতন-ভাতা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে তাতে। এ ছাড়া ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও করপোরেট প্রতিষ্ঠানের সিএসআর (করপোরেট সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি) ফান্ডের মাধ্যমে চাকরিজীবীদের সন্তানদের জন্য শিক্ষাবৃত্তি দেওয়ার উদ্যোগ নিতেও চিঠিতে অনুরোধ করা হয়েছে।

অর্থ বিভাগের উপসচিব (বাস্তবায়ন-১) জিনাত আরা স্বাক্ষরিত চিঠিটি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব চৌধুরী কামাল আবদুল নাসের এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের (ডিএফআইডি) সচিব ড. আসলাম আলমের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব মাহবুব আহমেদ গতকাল বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই।’

চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের বেতন কাঠামো সরকারি বেতন কাঠামোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ রাখা সমীচীন হবে। নতুন বেতন কাঠামো বাস্তবায়নের আগ পর্যন্ত বিদ্যমান কাঠামো অব্যাহত থাকতে পারে। অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্যও সরকারি বেতন কাঠামোর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নতুন বেতন কাঠামো চালু করা যেতে পারে।’

অর্থ বিভাগের সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা বলেন, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে মন্ত্রিসভার অনুমোদন সম্পন্ন হওয়ার পরও বাংলাদেশ ব্যাংক এবং চার রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালীর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোর গেজেট জারি করা সম্ভব হয়নি। এর আগেও বিভিন্ন সরকারের সময় ব্যাংকারদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়নে কয়েক দফা উদ্যোগ নেওয়া হলেও তা সম্পন্ন করা যায়নি।

ওই কর্মকর্তা জানান, ড. ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় বেতন ও চাকরি কমিশনের সুপারিশে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়নের সুপারিশ করা হয়েছে। আর মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত নতুন বেতন কাঠামোর খসড়ায়ও বাংলাদেশ ব্যাংকসহ রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়নের কথা বলা হয়েছে। তবে স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো অবশ্যই জাতীয় বেতন কাঠামোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে।

সচিব কমিটির সুপারিশে ব্যাংকারদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়ন প্রসঙ্গে বলা হয়েছে, ‘অর্থ বিভাগের অনুমোদন নিয়ে নিজ পরিচালনা পর্ষদের সম্মতিক্রমে বাংলাদেশ ব্যাংক স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়ন করে বাস্তবায়ন করতে পারবে। তবে স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোটি যাতে সরকারি বেতন কাঠামোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়, সেদিকে নজর রাখতে হবে। অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্যও সরকারি বেতন কাঠামোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নতুন বেতন কাঠামো চালু করা যেতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here