ফখরুলের জামিন বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ

নাশকতার তিন মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে আগামী ছয় সপ্তাহ পর তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে।

রোববার প্রধান বিচারপতির এসকে সিনহার নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

পল্টন থানায় করা পৃথক তিন মামলায় গত ২১ জুন হাইকোর্ট মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন আদালত। সে আদেশের স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ চেম্বার বিচারপতির কাছে গেলে, চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বিষয়টি শুনানির জন্য আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠান।

আজ সোমবার শুনানি শেষে আপিল বিভাগ হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ বহাল রাখেন।

ছয় মাস ধরে কারাবন্দি ফখরুল বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন। ফখরুল অসুস্থ হয়ে পড়লে আদালতের নির্দেশে গত ১৩ জুন তাকে কাশিমপুর কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের প্রিজন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

চলতি বছর বিএনপির আন্দোলনের মধ্যে ৬ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে আটক করে তাকে নাশকতার মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

বিচারিক আদালতে এসব মামলায় জামিন না পেয়ে হাইকোর্টে যান ফখরুলের আইনজীবীরা। এর মধ্যে পল্টন থানায় গাড়ি পোড়ানো, অগ্নিসংযোগ ও ককটেল বিস্ফোরণের এক মামলায় গত ১৬ এপ্রিল হাইকোর্ট থেকে ছয় মাসের জামিন পান মির্জা ফখরুল।

এরপর পল্টন থানার দু’টি এবং মতিঝিল থানার এক মামলায় ১৮ জুন পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত ফখরুলকে জামিন দেন হাইকোর্ট।

আর পল্টন থানার অন্য তিন মামলায় অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর হয় গত ২১ জুন। পরে রাষ্ট্রপক্ষ আদেশ স্থগিতে আপিল বিভাগে গেলে সেখানেও ফখরুলের জামিন বহাল থাকে। বর্তমানে ২১ জুনের আদেশের বিষয়টি আপিল আদালতের বিবেচনাধীন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here