তেজগাঁওয়ে কেন্দ্রের বুথ দখল করে গণহারে ভোট

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের একটি ভোট কেন্দ্রের বুথ দখল করে একদল কর্মীকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর মার্কায় গণহারে সিল মারতে দেখা গেছে বলে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসি।

এসময় ভোট-গ্রহণের দায়িত্বে থাকা সর্বোচ্চ কর্মকর্তা প্রিজাইডিং অফিসার নিষ্ক্রিয় হয়ে বসেছিলেন।

তেজগাঁও সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের একটি ভোট কেন্দ্রে বিবিসির সংবাদদাতা ফারহানা পারভীন এই ভোট জালিয়াতি প্রত্যক্ষ করেন।

ফারহানা জানান, দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে তিনি ওই কেন্দ্রে গিয়েছিলেন ভোটারদের সাথে কথা বলতে।

তখন কেন্দ্রের বাইরে ছিলো ভোটারদের লম্বা লাইন। তারা অভিযোগ করছিলেন যে দেড়/দু’ঘণ্টার মতো লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও তারা ভোট দিতে পারছিলেন না।

ভোটারদের সাথে কথা বলার পর তিনি কেন্দ্রের ভেতরে যান নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে।

কিন্তু একটি বুথের ভেতরে গিয়ে তিনি দেখতে পান সেখানে কোনো ভোটার নেই। কিন্তু সরকারি দলের ১০/১৫ জনের একদল সমর্থক ব্যালট পেপারে খুব দ্রুতগতিতে ভোট দিচ্ছেন।

কর্মকর্তাদের সামনেই এই ভোট জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় তার চুপ করে বসেছিলেন

তাদের অনেকের গলায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আনিসুল হকের পোলিং এজেন্টের মালা ঝুলছিলো।

এসময় সেখানে উপস্থিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার চুপচাপ বসেছিলেন।

কর্মীরা তাদের চেয়ার টেবিলে ব্যালট পেপারে সিল মারছিলেন।

বিবিসির সংবাদদাতাকে দেখে তারা কিছুটা হতচতিক হয়ে পড়েন এবং এক পর্যায়ে বুথ থেকে বের হয়ে চলে যান।

তখন ওই বুথে বিবিসির সংবাদদাতা ছাড়া আর কেউই উপস্থিত ছিলো না।

ওই কেন্দ্রটিতে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর কোনো পোলিং এজেন্টকে দেখা যায়নি।

পরে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মাহবুব ফেরদৌসের কাছে এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন এধরনের কোনো ঘটনা ঘটেছে বলে তার জানা নেই।

তিনি বলেন, আমি এরকম কিছুই দেখিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here