গোলাপ মুনীর : এক নিরহংকার মানুষের প্রতিচ্ছবি

66
গোলাপ মুনীর : এক নিরহংকার মানুষের প্রতিচ্ছবি

গোলাপ মুনীর ভাই। তার আসল নাম মুনীর তৌসিফ। সমধিক পরিচিত গোলাপ মুনীর নামে। অসাধারণ মেধাবী। বিজ্ঞান, রাজনীতি, সমাজনীতি সব বিষয়ে অসাধারণ পাণ্ডিত্য ছিল। যেকোনো বিষয়ের গভীরে যেতে পারতেন। পত্রিকায় অসাধারণ তথ্যপূর্ণ কলাম লিখতেন। নয়া দিগন্তে লিখতেন ‘বহমান এই নষ্ট সময়ে’ শিরোনামে। প্রযুক্তিবিষয়ক পত্রিকা কম্পিউটার জগতের সম্পাদক ছিলেন। একটি দৈনিকের সহকারী সম্পাদক হিসেবেও কাজ করেছেন।  একজন জ্ঞানী মানুষ কতটা নিরহংকারী হতে পারেন তার বাস্তব প্রমাণ তিনি।

তিনি সিনিয়র মানুষ। সম্পাদকীয় বিভাগে কাজ করতেন। আমি অন্য বিভাগে। তাই তার সাথে তেমন একটা আলাপ হতো না। জাস্ট চোখাচোখি হলে সালাম বিনিময় হতো।

সেন্টার ফর মিডিয়া রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিং -এমআরটি থেকে সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ কোর্স চালু হলে তাকে একটা ক্লাস দেয়া হয়। বিষয় ছিল- সহজ সরল লেখার কৌশল। লেকচারের পাশাপাশি অসাধারণ একটা শিট করে ফেললেন।

মাঝে মধ্যে সেটা আপডেট করতেন। কোনো কিছু সংযোজন বিয়োজন করার থাকলে সরাসরি আমার রুমে চলে আসতেন। তিনি চাইলে আমাকে তার রুমে ডাকতে পারতেন। যেটা সচরাচর সবাই করেন। কোনো কিছু জানতে চাইলে বেশ আগ্রহের সাথে বোঝাতে চেষ্টা করতেন।

গোলাপ মুনীর
গোলাপ মুনীর

এমআরটির সাংবাদিকতা কোর্স এবং কারেন্ট দিগন্তের জন্য লেখা নিতে তার সাথে আমার যোগাযোগ বৃদ্ধি পায়। তার, গ্রাম, পরিবার ও ছোটবেলার অনেক গল্প শুনেছি তার কাছে। অফিসের কাজ শেষ হলে বিকেলে তার বিভাগটি ফাঁকা হয়ে যেত। অনেক সময় তিনি ডেস্কে বসে লেখালিখি করতেন। এরই ফাঁকে আমাকে শোনাতেন অনেক অভিজ্ঞতার কথা, তার ছেলেবেলার কথা। আমি তন্ময় হয়ে শুনতাম। আর হারিয়ে যেতাম সুনামগঞ্জের পথে প্রান্তরে…।

এরপর পত্রিকার অফিস পরিবর্তন হয়। তখন থেকে যোগাযোগ অনেকটাই কমে যায়। আমি পত্রিকা ছেড়ে দিই। দীর্ঘদিন যোগাযোগ ছিল না।

এই নিরহংকারী, ভদ্র ও আন্তরিক মানুষটি আজ সকালে ইন্তেকাল করেছেন। করোনা আক্রান্ত ছিলেন তিনি।

মরহুম মুনীর মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাসিক কমপিউটার জগত পত্রিকায় সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। রাজধানীর মোহাম্মদপুর আদাবরে সপরিবারে বসবাস করতেন মিতভাষী ও অত্যন্ত মেধাবী এই ফিচার লেখক।

গবেষণাধর্মী লেখালেখি, অনুবাদ, কলাম লেখা, বিজ্ঞান, গণিত ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে তার লেখনী জাগ্রত করে ছেলে-বুড়ো সকলকেই। প্রবীণ সাংবাদিক গোলাপ মুনীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সদস্য ছিলেন।

আল্লাহ মুনীর ভাইকে ক্ষমা করুন। জান্নাতে করুন সম্মানিত।

লেখক : উদ্যোক্তা, ওয়েব ডেভেলপার ও সাংবাদিক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here