Home > জীবনধারা > যাঁরা ব্যায়াম শুরু করতে চান

যাঁরা ব্যায়াম শুরু করতে চান

আগে কখনো শরীর চর্চার ধারে কাছে যাননি, কিন্তু এখন ব্যায়াম শুরু করতে চান। আপনি কোথা থেকে শুরু করবেন, তা বুঝতেই পারছেন না। এ অবস্থায় কোনো একজন ব্যায়াম বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়েই শরীর চর্চার শুরু করা বুদ্ধিমানের কাজ। অনেকেই আছে, যাদের ব্যায়াম বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়াটা ঠিক পছন্দ নয়। তাদের অবশ্য দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। এখনই আমরা জেনে যাব কোথা থেকে আমাদের শুরু করতে হবে।

পরিচিতি পর্ব : কোনো কিছুর শুরুতে পরিচিত পর্বটাই আসল। আমরাও প্রথমে পরিচিত হব, তবে কোনো মানুষের সঙ্গে নয়, জিমনেশিয়ামের যন্ত্রপাতির সঙ্গে। প্রথমে আমাদের কোনো জিমনেশিয়ামে যেতে হবে। সেখানকার কারো কাছ থেকে জেনে নিতে হবে কোন উপকরণের কী কাজ। কোন উপকরণ ব্যবহারে কী ধরনের সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, তা জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

স্বাস্থ্যের প্রতি সতর্কতা : ব্যায়াম শুরু করলে স্বাস্থ্যের প্রতি নজর রাখতে হবে। বিশেষ করে ব্যায়ামের পর নিয়মিত গোসল করতে হবে। কেননা ব্যায়ামে শরীর ঘেমে দুর্গন্ধ ছড়াতে পারে।

সহযোগিতা নেওয়া : অনেক সময় আরো আধুনিক উপকরণ ব্যবহারের প্রয়োজন হয়ে পড়ে। সে সময়ে নতুন উপকরণ ব্যবহারের আগে অবশ্যই ইনস্ট্রাক্টরের সাহায্য নিতে হবে।

ওয়ার্ম আপ : ব্যায়ামের উপকরণ ব্যবহারের আগে অবশ্যই ওয়ার্ম আপের মাধ্যমে নিজেকে প্রস্তুত করে নিতে হবে। কেননা কঠিন ব্যায়ামের আগে নিজেকে প্রস্তুত করে নেওয়াটা জরুরি। তা ছাড়া ওয়ার্ম আপ করে নেওয়ায় ইনজুরি থেকে নিজেকে মুক্ত রাখা যায়।

টাওয়াল কাছে রাখা : ব্যায়ামের আগে কাছে একটা টাওয়াল থাকাটা নিশ্চিত করতে হবে। কেননা ব্যায়ামের সময় শরীরে ঘাম হবে আর এ ঘাম যন্ত্রের ওপর যাতে না পড়ে সে জন্য টাওয়াল দিয়ে শরীর মুছে নিতে হবে।

দীর্ঘ সময় না নেওয়া : ট্রেডমিলে দৌড়ানো স্বাস্থ্যকর এবং আনন্দদায়কও বটে। এ কারণে অনেকেই ট্রেডমিলে বেশি সময় দৌড়াতে চায়। কিন্তু মনে রাখতে হবে একই ট্রেডমিল ব্যবহারের জন্য আরো অনেকেই অপেক্ষা করছে। সে কারণে যথাসম্ভব কম সময় নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে।