প্রেমিকার মনের মতো মানুষ হবেন যেভাবে

image_198561.couple loveমনের মতো মেয়েটির মনের মানুষ হতে আপনাকে সিনেমার হিরো হতে হবে। বিশেষজ্ঞের মতে, শুধু কয়েকটি বিষয় এড়িয়ে চলতে হবে। জেনে নিন ৫টি বিষয় যা সঙ্গিনীর সঙ্গে করতে যাবেন না।
১. যোগাযোগে দেরি : হয়তো ভাবছেন মেয়েটি আপনাকে ফোন দেবে। অথবা ভাবছেন, মেয়েটি বুঝতে পারছেন যে আপনি কতটা ব্যস্ত ছিলেন। এভাবে চিন্তা করবেন না। এর ফলাফল কখনো ভালো হয় না।
বিশেষজ্ঞের পরামর্শ : কোথাও দেখা করতে হলে ৫ মিনিট আগে পৌঁছান। দরজাটা তার জন্যে খুলে দিন। তাকে দেখান যে, আপনার জীবনে তার গুরুত্ব ফুরিয়ে যায়নি।
২. শুধু মাকে নিয়ে কথা বলা : আপনি শুধু আপনার মায়ের নানা পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে কথা বলেন। তার গুণের কথা বলতে বলতে সময় পার করেন। সকালে তাকে দেখতে না পেলে কেমন লাগে আপনার ইত্যাদি। এগুলো নিশ্চয়ই খুব মিষ্টি বিষয়। কিন্তু যখন প্রেমিকাকে বলছেন, তখন তার কাছে এগুলো তিক্ত হতে পারে।
বিশেষজ্ঞের পরামর্শ : কেবলমাত্রা যখন জিজ্ঞাসা করা হবে তখনই তার বিষয়ে কথা বলুন। তাকে কেন্দ্র করে আদর্শ নারীর চিত্র ফুটিয়ে তুলবেন না।
৩. নিজের সৌন্দর্য তুলে ধরা : ব্যায়াম করা সুঠাম দেহ আপনার। আঁটোসাঁটো গেঞ্জি পরেন পেশি দেখানো জন্যে। মাথা থেকে পা পর্যন্ত পারফিউম লাগিয়ে ঘুরে বেড়ান। পরনের সব চকচকে পরিপাটি। ব্যক্তিত্ব ফুটে উঠলেও প্রেমিকা আপনাকে কোনো শো-পিস বলে ভাবতে পারেন।
বিশেষজ্ঞের পরামর্শ : মেয়েটির মন গলাতে তার সামনে অতিরঞ্জিত কিছু করার প্রয়োজন নেই। রুচিশীল পোশাকে  স্বাভাবিক থাকুন।
৪. নাটকীয় প্রকাশ : প্রেমিকাকে ফুল দিতে টম ক্রুজের স্টাইল বেছে নেন আপনি। ‘ভালোবাসি’ বলতে গিয়ে রোমান্টিক কোনো গান গাইতে শুরু করেন। মেয়েটিকে নিয়ে আপনার যাবতীয় কাজে নাটকীয়তা থাকে যা কাউকে না কাউকে দেখে তা অনুকরণ করেন। সম্ভবত আপনার মাঝের আসল মানুষটিকে খুঁজে পাচ্ছেন না সঙ্গিনী।
বিশেষজ্ঞের পরামর্শ : এগুলো মাঝে মাঝে কৌতুক হিসাবে বেশ উপভোগ্য হবে। কিন্তু এসব যদি আপনার স্বভাবের অংশ হয়, তবেই বিপদ। তাই নিজস্ব স্টাইল এবং আচরণ দিয়ে ভালোবাসার প্রকাশ ঘটান।
৫. শুধুই নিজের কথা : আপনি শুধু নিজের ব্যাপারেই বলতে থাকেন। জীবনের প্রতিটি ঘটনা নিয়েই আপানার মুখ চলতে থাকে। কথনোই প্রেমিকাকে তার জীবন নিয়ে প্রশ্ন করেন না। এভাবে নিজের প্রতি মুগ্ধ হয়ে থাকাটা কোনো মানুষের কাছেই পছন্দনীয় নয়। দুজনকে নিয়েই ভাবে এমন ছেলেকেই খোঁজেন মেয়েরা।
বিশেষজ্ঞের পরামর্শ : মেয়েটিকে বলার সুযোগ দিন। তাকে প্রশ্ন করুন। তার পছন্দ-অপছন্দ জানার চেষ্টা করুন।

সূত্র : হিন্দুস্তান  টাইমস 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here