প্রাকৃতিক উপায়ে চোখের পাপড়ি সুন্দর করে নিন

চোখfile-2 সুন্দর দেখায় ঘন এবং একটু বড় পাপড়িতে। পুরো চোখের আকারই বদলে যায়। একটু বড় চোখের পাপড়ি সবাই পছন্দ করে। এ কারণেই মেয়েরা মেকআপের মাধ্যমে চোখের পাপড়ি বড় করে থাকেন। কেউ কেউ মোটা করে মাশকারা ব্যবহার করেন আবার কেউ ফলস আইল্যাশ লাগান। কিন্তু কেমন হয় যদি সত্যিকারের চোখের পাপড়িই ঘন এবং বেশ বড় করে ফেলা যায়? ব্যাপারটি কিন্তু একেবারেই কঠিন কিছু নয়। ঘরোয়া কিছু প্রাকৃতিক এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বিহীন উপায়ে খুব সহজেই চোখের পাপড়ির আকার বড় করে নেয়া সম্ভব। ভাবছেন কীভাবে? চলুন তবে জেনে নেয়।

 

১) অলিভ অয়েলের ব্যবহার

একটি পুরনো মাশকারার ব্রাশ ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। এরপর রাতে ঘুমুতে যাওয়ার আগে এই মাশকারার ব্রাশ অলিভ অয়েলে ডুবিয়ে মাশকারা দেয়ার মতো চোখের পাপড়িতে লাগিয়ে নিন। পুরো রাত এভাবে রেখে সকালে কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন। এভাবে নিয়মিত ২-৩ মাসের মধ্যেই দেখতে পাবেন পরিবর্তন। একই ভাবে ক্যাস্টর অয়েল ও আমন্ড অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।

২) লেবুর খোসার ব্যবহার

চোখের পাপড়ি বড় করার জন্য লেবুর খোসার ব্যবহারও অনেক সহজ। সামান্য অলিভ অয়েল বা আমন্ড অয়েলে লেবুর খোসা দিয়ে তা গরম করে নিন। ৩-৪ বার শুধু গরম করবেন। লক্ষ্য রাখবেন তেল যেনো ফুটে না যায়। এরপর এই তেলটি মাশকারা ব্রাশের সাহায্যে মাশকারা দেয়ার মতো চোখের পাপড়িতে লাগিয়ে নিন। পুরো রাত এভাবে রেখে সকালে কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

৩) পেট্রোলিয়াম জেলির ব্যবহার

একইভাবে রাতে ঘুমুতে যাওয়ার আগে মাশকারার ব্রাশে পেট্রোলিয়াম জেলি মেখে মাশকারা দেয়ার মতো চোখের পাপড়িতে লাগিয়ে নিন। পুরো রাত এভাবে রেখে সকালে কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

জেনে রাখুন সহজ কিছু টিপসঃ

১। চুল সঠিকভাবে এবং নিয়মিত আঁচড়ানো যেমন চুল বৃদ্ধিতে সহায়ক, একইভাবে চোখের পাপড়িও বৃদ্ধি সম্ভব। নিয়মিত চোখের পাপড়ি আঁচড়ে নেবেন।

২। অতিরিক্ত মাত্রায় আইল্যাশ কালার ব্যবহার করবেন না। এতে চোখের পাপড়ির ক্ষতি হয়।

৩। ভিটামিন ই চোখের পাপড়ি বড় করতে সহায়তা করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here