ত্বক ব্রন মুক্ত রাখতে চান

ত্বকের যত্নের মাধ্যমে মানুষ যে জিনিসটিকে দূরে রাখতে চায় তা হলো ব্রণ। ত্বকে ব্রণ ওঠা সবচেয়ে বিরক্তিকর এবং এর জন্যে নানা প্রসাধন ব্যবহার করেন সবাই। কিন্তু কি কারণে যেন এর থেকে দূরে থাকা এতটা সহজ হয়ে ওঠে না। বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, ত্বকে ব্রণমুক্ত রাখতে হলে ৭টি জিনিস থেকে দূরে থাকতে হবে। জেনে নিন এদের কথা।

১. গোসলে সুগন্ধী ওয়াশ ব্যবহার জনপ্রিয় হলেও তারা একনি বা পিম্পলের জন্যে পুরোপুরি দায়ী থাকে। তাই বলে সব বডি ওয়াশ ত্যাগ করার দরকার নেই। কিছু বডি ওয়াশ রয়েছে যা স্পর্শকাতর ত্বকের জন্যে তৈরি করা হয়েছে।

২. ত্বকে অনবরত হাত দেওয়া হলে হাতের ময়লা মুখের ত্বকে লেগে যায়। আর এতে একনি হওয়া বিচিত্র কিছু নয়। আবার ব্রণ বারবার হাত দিয়ে স্পর্শ করতে থাকলে এর অবস্থার অবনতি ঘটবে। কাজেই মুখের ত্বকে বা একনিতে বারবার ময়লা হাত লাগাবেন না।

৩. চিনযুক্ত ও জাঙ্ক ফুড ত্বকে পিম্পল ওঠাতে ওস্তাদ। চিনি এবং উচ্চমাত্রার ফ্যাটযুক্ত খাবার ত্বকে পিম্পল সৃষ্টি করে। যদিও এ খাবারগুলো মুখরোচক হয়, তবুও তা এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন।

৪. চুলের যত্নে যে সব প্রসাধন ব্যবহার করা হয়, তা ত্বকের জন্যে হুমকি। চুলের স্প্রে ব্যবহারের সময় তা মুখে লেগে যায়। এগুলো একনির বড় কারণ।

৫. ত্বকে ভুল প্রসাধন ব্যবহার করা হলেও বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে। বিশেষ করে পিম্পল দূর করতে অনেকেই ক্রিম ব্যবহার করেন। কিন্তু সেক্ষেত্রে ভুল ক্রিম ব্যবহার করা হলে হিতে বিপরীত হবে। এতে একনি আরো বাড়তে পারে এবং বড় ধরনের সংক্রমণও ঘটতে পারে।

৬. অনেকেই এ বিষয়ে সচেতন নন যে, ময়লা মোবাইল ফোন ব্যবহারেও ত্বকে একনি উঠতে পারে। মোবাইলের ময়লায় ব্যাকটেরিয়াসহ নানা সংক্রমক পদার্থ থাকতে পারে। মোবাইলে কথা বলার সময় তা মুখের স্পর্শে থাকে। আর এ থেকেই পিম্পল ওঠে।

৭. ত্বকে এসব অস্বস্তিকর পিম্পল ওঠার আরেকটি অন্যতম কারণ স্ট্রেস। অতি স্ট্রেসের কারণ একনি হয়ে ফুটে ওঠে ত্বকে। শুধু ত্বকের যত্ন নিলেই হবে না। স্ট্রেসমুক্ত থাকার চেষ্টা করুন। সূত্র : ইন্টারনেট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here