ত্বককে গর্জিয়াস করতে ৫টি সহজ স্কার্ব

বিশেষজ্ঞরা বলেন, ত্বকের যত্নে প্রাকৃতিক উপকরণ দ্বারা তৈরি স্ক্রাব দিয়ে, ত্বকের ক্ষতি এরাতে পারেন ও ত্বককে স্বাস্থ্যবান করে তুলতে পারেন। পুরুষ ও নারী উভয়ের জন্যই ত্বকের সৌন্দর্য অনেক গুরুত্বপুর্ণ। ছেলেরা নিয়মিত শেভ করলে ত্বক অনেক রুক্ষ হয়ে পরে তাই তাদের জন্যেও স্কার্ব ব্যবহারের উপকারিতা রয়েছে। চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ড. অপরাতিম গোয়েল বলেন, যদি আপনার ত্বকে ব্রণ বা অন্যান্য ফুসকুড়ি ওঠে তবে আপনার ত্বকে ভালো মানের স্কার্ব ব্যবহার করা উচিত, এটি বিভিন্ন ধরনের স্কিন সমস্যা থেকে আপনাকে রক্ষা করবে’।

এস্থেটিসিয়ান, রিতুকে তানওয়ার বাড়িতে সহজ পদ্ধতিতে তৈরি করা যায় এমন ৫টি স্কার্ব তৈরির রেসিপি জানিয়ে দিয়েছেন। চলুন জেনে নেই এগুলোর প্রস্তুত প্রনালী ও ব্যাবহার।

মধু ও কমলার স্কার্ব :
কমলার খোসা শুকিয়ে এর পাউডার তৈরি করুন। দুই টেবিল চামচ পাউডারে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে সামান্য পানি দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। একে মুখে মাস্ক এর মতো করে ব্যবহার করুন। ৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার ত্বকের দাগ ময়লা দূর হবে ও অনেক বেশি উজ্জ্বল দেখাবে।

কলার স্কার্ব :
দুটো পাকা কলা মিশিয়ে এতে চিনি মিশান। এবার এতে ১ টেবিল চামচ মধু যোগ করে ভালোভাবে ফেটুন। এই মিশ্রণটি আপনার মুখ, গলা ও ঘারে সফটলি মাসাজ করুণ। পাঁচ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণটি চুলে লাগালেও অনেক কার্যকাঋতা পাওয়া যায়।

দই ও পেঁপের স্কার্ব :
আধাকাপ পেঁপে সেদ্ধ দুই টেবিল চামচ দই মিশিয়ে নিন। এতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস এবং এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে কয়েক ৫ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

মধু ও আটা স্কার্ব:
মধু ও আটা মিশিয়ে স্কার্ব বানিয়ে মুখে ১০ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মুখে নিয়মিত এই প্যাক লাগালে মুখের দাগ দূর হয়ে ত্বক হবে উজ্জ্বল। ত্বক উজ্জ্বল করতে কয়েকটি বাদাম পানিতে ভিজিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। বাদাম পেস্ট করে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিন। ভালো করে মুখে লাগান।

লেবুর স্কার্ব হাত ও পায়ের জন্যে :
লেবুর একটি টুকরা চিনির মধ্যে ধরুন। এতে লেবুর রসের সঙ্গে কিছু চিনি মিশে যাবে। এবার চিনিসহ লেবুর টুকরাটি হাতে ও পায়ে ঘষতে থাকুন। এটি আবার মুখে ঘষতে যাবেন না। এতে মুখের কোমল ত্বকে সমস্যা হয়ে যেতে পারে। এটি হাতে ও পায়ে লাগিয়ে ৫ মিনিট রেখে দিন। আপনার হাত ও পায়ের স্কিন হবে কোমল ও সুন্দর। -সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here