অতিরিক্ত ঘাম থেকে মুক্তির উপায়

13-ynoj_620x0_65891শীত শেষে প্রকৃতি সেজে উঠেছে বসন্তের সাজে। ইতিমধ্যে বইতে শুরু করেছে গ্রীষ্মকালের গরম হাওয়া। সেই সঙ্গে গরমকালের কিছু বিরক্তিকর সমস্যা। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ঘেমে যাওয়া। অনেকেই অতিরিক্ত ঘেমে যান গরমে। ঘাম হওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো হলেও অতিরিক্ত ঘাম হওয়া কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তাই অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়া বন্ধ করতে সতর্ক থাকা উচিত। এজন্য অতিরিক্ত ঘামের হাত থেকে মুক্তি পেতে আপনাদের জন্য রইল কিছু টিপস।


ভিনিগার ও তেলের সংমিশ্রণ: ১২০ মিলি লিটার লাল ভিনেগার ও ৩০ ফোঁটা তিলের তেল/অলিভ অয়েল/পিপারমিন্ট অয়েল একসাথে ভালো করে মিশিয়ে একটি বোতলে মুখ শক্ত করে লাগিয়ে রাখুন। ১ সপ্তাহ বোতলটি না খুলে ঠাণ্ডা, শুষ্ক ও অন্ধকার স্থানে রেখে দিন যাতে মিশ্রণটি একসাথে মিশে যায়। এরপর ১ সপ্তাহ পর প্রতিবার গোসল স্নান করার সময় স্নানের জলে ৩ টেবিল চামচ এই মিশ্রণটি মিশিয়ে নিন। অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়ার হাত থেকে আপনি অনায়াসে মুক্তি পাবেন।

আপেল সিডার ভিনিগার ও বেকিং সোডার সংমিশ্রণ: টেবিল চামচ আপেল সিডার ভিনেগার নিয়ে এতে ১/৮ চা চামচ বেকিং সোডা ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি দিনে ১ বার করে পান করুন, যদি ঘেমে যাওয়ার সমস্যা অতিরিক্ত হয় তাহলে দিনে ৩ বার পান করতে পারবেন। কিন্তু এর চেয়ে বেশি পান করবেন না। ভালো ফল পাবেন।

বাথসল্ট: আধা কাপ বোরাক্স, ১ কাপ সি সল্ট, ১ কাপ বেকিং সোডা এবং ১ কাপ তিলের তেল/অলিভ অয়েল/পিপারমিন্ট অয়েল একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন। প্রতিবার স্নানের সময় ২ বালতি জলে মিশ্রণটির ১/৪ কাপ পরিমাণে মিশিয়ে স্নান করুন। এছাড়াও যদি পারেন তাহলে বাথটাবে গরম জলে এই মিশ্রণটি মিশিয়ে ২০ মিনিট গা ডুবিয়ে থাকুন। এতেও দারুন ফল পাবেন।

আর যদি আপনি এগুলো ঠিকঠাক করতে পারেন তাহলে মুক্তি পেতে পারেন অতিরিক্ত ঘামের যন্ত্রণা থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here