সিলেট ওসমানী হাসপাতালে দশ ঘণ্টায় ১০ শিশুর মৃত্যু

সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গত দশ ঘণ্টায় নবজাতকসহ ১০ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ‘ভুল’ চিকিৎসায় তারা মারা গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও মৃতের এ সংখ্যাকে অস্বাভাবিক বলে বর্ণনা করেছেন। সোমবার রাত ৯টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৭টা পর্যন্ত সময়ে এই শিশুদের মৃত্যু হয়। কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. ইসমাইল পাটোয়ারীকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।
নবজাতকের স্বজনদের অভিযোগ, ভুল চিকিৎসায় এসব নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। ওই শিশুরা হলো- সিলেটের গোয়াইনঘাটের সায়মা¬ (দেড় বছর), জকিগঞ্জের দশগ্রামের আকাশ (৭ দিন), নগরীর শেখঘাটের নিলুমার নবজাতক মেয়ে, শাহপরাণের আসমা ও সন্ধ্যা রাণীর নবজাতক মেয়ে, সুনামগঞ্জ সদরের তাজরিয়া (সাড়ে তিন বছর, মেহেদী (আড়াই মাস, ছাতকের শাফরাজ (৩ বছর), বিশ্বম্ভরপুরের নাদিনা (৬ মাস), হবিগঞ্জের ইয়াসমিন (৩ দিন)।
ওসমানী হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ আব্দুস সালাম ১০ নবজাতকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, শ্বাস-প্রশ্বাস ও জন্মগত ত্রুটির কারণে এসব শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে তার ধারণা।
তিনি বলেন, ওসমানী হাসপাতালে প্রায় প্রতিদিনই ২/১টি শিশু মারা যায়। তবে, একই সাথে ১০ শিশু মৃত্যুর বিষয়টি অস্বাভাবিক। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ও নার্সের কোনো গাফিলতি আছে কি-না তা খতিয়ে দেখতে প্রফেসর ডাঃ ইসমাইল পাটোয়ারীকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। রিপোর্টে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানান ডাঃ আব্দুস সালাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here