Home > দেশজুড়ে > মনপুরায় ট্রলারডুবি: মেঘনায় ভাসছে ২৪ জেলে

মনপুরায় ট্রলারডুবি: মেঘনায় ভাসছে ২৪ জেলে

বঙ্গোপসাগরে ২৪ জন জেলে নিয়ে মাছধরা ট্রলার ‘এফবি আল্লাহ মালিক’ নামে একটি ট্রলার ডুবে গেছে।

বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে চট্টগ্রামের বড়গোফ জেটিঘাট থেকে সুন্দর বনের দুবলার চর এলাকায় যাওয়ার পথে ভোলার ঢালচরের দক্ষিণ সাগরে ঢেউয়ের তোপে ট্রলাটি ডুবেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চট্টগ্রামের বড়গোফ জেটিঘাটের ব্যবসায়ি ট্রলার মালিক আবুল কালাম আজাদ ট্রলার ডুবির খবর নিশ্চিত করেছেন।

ট্রলার মালিক আবুল কালাম আজাদ গতকাল রাত সাড়ে ১০টায় এই প্রতিনিধিকে জানান, বুধবার ২টায় এফবি আল্লাহ মালিক নামে মাছধরা ট্রলারটি টট্টগ্রামের বড়গোফ জেটিঘাট থেকে ২৪ জন জেলেসহ ছেড়ে যায়। জেটিঘাট থেকে সুন্দরবনের দুবলার চর এলাকায় যাওয়ার পথে ঢেউয়ের তোড়ে ট্রলারটি ডুবে যায়।

ট্রলারে থাকা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দুর্ঘটনায় পতিত জেলেরা মালিক আবুল কালাম আজাদকে আরো জানান, হাতিয়া থেকে ৫ ঘণ্টার পশ্চিম এবং কুয়াকাটা থেকে ৪ ঘণ্টার পথ পূর্বদিকে এবং ভোলার ঢালচরের দক্ষিণের গভীর সাগরে ট্রলারটি ডুবে যায়। ডুবে যাওয়া ট্রলারের বাঁশের তৈরি ভেলা এবং লাইফজ্যাকেট নিয়ে ২৪ জন জেলের সবাই ঢেউয়ের সঙ্গে দিনভর ভাসতে থাকেন। সময় বাড়ার সাথে একের পর এক মোবাইল ফোন বন্ধ হয়ে যায়। বিকেল পর্যন্ত একটি মোবাইল ফোন চালু থাকলেও সন্ধ্যার পর তাও বন্ধ হয়ে।

ডুবে যাওয়া ট্রলারের বড় মাঝি মাহাবুবুল হক, মোবারক হোসেন, নুরুল বশর, এরশাদ, জব্বার, খোরশেদ, নাজিম, তাজল, আনসারুল করিম, রুবেল এবং আমির হামজার নাম জানা গেছে। জেলেদের সবার বাড়ি কুতুবদিয়ার বড়গোফ ইউনিয়নে বলে ট্রলার মালিক জানান।

এদিকে, কোস্টগার্ড চর কচ্চপিয়া স্টেশনের প্যাটি অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, কোথায় ট্রলারটি ডুবেছে  তা নিশ্চিত নয়। ঢালচরের নীচে (দক্ষিণ সাগরে) ট্রলার ডুবির খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলের উদ্দেশে যাত্রা করলেও সাগর উত্তাল থাকায় বেশিদূর এগুতে পারেননি।