পেট্রোল বোমাসহ আ’লীগ কর্মীর স্ত্রী আটক!

দেবিদ্বারে ৪টি পেট্রোল বোমাসহ শাহনাজ বেগম (৪৫) নামে এক মহিলাকে সোমবার দুপুরে দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ এলাকার ফুলতলী সড়কের মাথায় গ্রেফতার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ। ওই ঘটনায় অজ্ঞাত ব্যাক্তিসহ ৩ জনকে অভিযুক্ত করে সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা দায়ের পূর্বক মঙ্গলবার দুপুরে আটক শাহনাজ বেগমকে কুমিল্লা কোর্ট হাজতে চালান করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) মোঃ নুরুল ইসলাম মজুমদার একদল পুলিশ নিয়ে অভিযান চালিয়ে কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ এলাকার ফুলতলী সড়কের মাথায় একটি সিএনজি চালিত অটো রিক্সা অবরোধ করে তল্লাসী চালায়। এসময় দেবিদ্বার উপজেলার এলাহাবাদ গ্রামের মবিন মেম্বারের বাড়ির মোঃ শাহজাহান সরকারের স্ত্রী শাহনাজ বেগমের হাতে থাকা কসটেপ মোড়ানো একটি কাগতের মলাটের প্রাণ ফ্রুটস ড্রিংকস’র কার্টুন খুলে ওই কার্টুনের ভেতরে একটি বালিশের ৪টি ফুটার ভেতরে ৪টি পেট্রোল বোমা দেখতে পায়। পেট্রোল বোমাগুলো ২০০মিলি গ্রাম পেপসির বোতলে পেট্রোল ভর্তী ও সলিতা যুক্ত করে বানানো ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শাহনাজ বেগম (৪৫) এলাকায় একজন দুরন্তর ও মামলাবাজ মহিলা হিসেবে পরিচিত। সে চাইনিজ একটি হারবাল কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধি। শাহনাজের স্বামী মোঃ শাহজাহান সরকার আ’লীগ কর্মী।

মামলার বাদী দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ নূরুল ইসলাম মজুমদার এবং মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা দেবীদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই)জাকির হোসেন জানান, ওই ঘটনায় পেট্রোল বোমা বহনের দায়ে আটক শাহনাজ বেগম (৪৫), সরবরাহকারী জয় (২৬) নামে ৩ জনকে অভিযুক্ত করে সন্ত্রাস বিরোধী আইনে দায়ের করা হয়েছে।

এব্যপারে দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, দেবিদ্বারের মতো জায়গায় পেট্রোলবোমা সরবরাহে নারীকর্মীর ভূমিকা নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। পেট্রোলবোমা সরবরাহকারী শাহনাজ বেগম খুবই চতুর, তার কাছ থেকে এ বিষয়ে কোন তথ্য উদঘাটন সম্ভব হয়নি। রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদে রহস্য উদঘাটনে চেষ্টা চালাব। ওই ঘটনায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা দায়ের করা করা হয়েছে। মেহেদী হাসান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here