পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে বন্দুকযুদ্ধ : ডিএমপি কমিশনার –

ঢাকা মেট্রো108354_Asaduzzaman-DMPপলিটন পুলিশের কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, বন্দুকযুদ্ধ ইচ্ছা করেই হয় না। পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে বন্দুকযুদ্ধ হয়। এতে বিচারের কোনো এভিডেন্স নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

আজ বুধবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেয়া চারজনকে পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে ডিএমপি কমিশনার একথা বলেন।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, আত্মরক্ষা করা প্রত্যেক নাগরিকের সাংবাধানিক অধিকার। সংবিধান অনুযায়ী, কারো ওপর হামলা হলে তার আত্মরক্ষার অধিকার আছে।

কমিশনার বলেন, চলমান নাশকতায় ঢাকা মহানগরীতে এক হাজার ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। গত ৫ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত সহিংসতায় জড়িত ১৮৬ জনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৮৪ জন জামায়াত ও ১০২ জন বিএনপি নেতাকর্মী। এছাড়া ৩০ জনকে ভাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে।

কমিশনার নান, এ পর্যন্ত ১১টি গাড়ি ভাঙচুর, ১৬৮টি গাড়িতে আগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এসব ঘটনায় ৪৪ জন পুলিশ সদস্য, দুইজন আনসার সদস্য আহত হয়েছেন। এছাড়া নিহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য। পাশাপাশি এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন অনেকে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান কমিশনার।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি বায়তুল আমান জামে মসজিদের সামনে একজন ককটেল হামলাকারিকে ধরিয়ে দেয়ায় এক রিকশা চালককে ডিএমপির পক্ষ থেকে নগদ অর্থ পুরষ্কার হিসেবে দেয়া হয়। একজন বিশিষ্ট নাগরিক ওই অনুষ্ঠানেই রিকশা চালককে নগদ ৫০ হাজার টাকা উপহার দেন। ওইদিন ককটেল হামলার প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন তিনি।

এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ককটেলসহ এক পিকেটারকে ধরিয়ে দেয়া তিন শিক্ষার্থীকে নগদ অর্থ সহায়তা করা হয়। তারা এই অর্থ ঢামেক বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীনদের জন্য দান করেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here