নিহত ছাত্রদল নেতা জনির নবজাতককে খালেদা জিয়ার উপহার

ঢাকা: ক্রসফায়ারে নিহত খিলগাঁও থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান জনির সদ্য জন্ম নেয়া শিশুর জন্য নানা উপহার পাঠিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

উপহার পেয়ে চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি তার পরিবারের সদস্যরা। আবেগাপ্লুত কণ্ঠে তারা খালেদা জিয়ার প্রতি কতৃজ্ঞতা জানিয়েছেন। একইসঙ্গে জনি হত্যার বিচারও দাবি করেন তার পরিবার।

সোমবার রাতে নুরুজ্জামান জনির খিলগাঁওয়ের বাসায় খালেদা জিয়ার উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ। উপহারের মধ্যে ছিল শিশু বাচ্চার ঘুমের জন্য বিশেষ খাট, দোলনা, ক্লথ, ড্রেসসহ প্রয়োজনীয় প্রায় সব কিছু। খালেদা জিয়ার উপহার পেয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন শোকার্ত পরিবারের সদস্যরা।

জনির বাবা ইয়াকুব আলী কেঁদে কেঁদে বলেন, ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) উপহার পেয়ে কত যে খুশি হয়েছি, তা বলে বুঝাতে পারবো না। আমার মেয়ে কিছু দিন আগে চোখের পানি মুছতে মুছতে বলছিল, জনি বেঁচে থাকলে বাবুর জন্য কত কিছু যে কিনে নিয়ে আসতো। ম্যাডাম আমাদের ভোলেননি। আমরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ।

ইয়াকুব আলী সন্তানকে হারিয়ে এখনো পাগলপ্রায়। তিনি বলেন, কেন আমার নিরপরাধ ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। তার তো কোন অপরাধ ছিল না। আমি এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই। আল্লাহ যেন এর বিচার করেন।

জনির স্ত্রী ফাতেমাতুজ্জোহরা তুলি শিশু নাজিবুজ্জামান নহরকে কোলে নিয়ে বারবার মূর্ছা যান। কোন কথাই বলতে পারছিলেন না তিনি।

আবদাল আহমেদ পরিবারের সদস্যদের এসময় সান্ত¡না দিয়ে বলেন, আপনারা ধৈর্য্য ধারণ করুন। ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) বলেছেন, আপনাদের এই ত্যাগ বৃথা যাবে না।

প্রসঙ্গত, ছাত্রদল নেতা জনি গত ২০ ফেব্রুয়ারি কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here