Home > দেশজুড়ে > আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আটকের নামে তামাশা বন্ধ করতে হবে : ড. মিজান

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আটকের নামে তামাশা বন্ধ করতে হবে : ড. মিজান

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আটকের নামে তামাশা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান। তিনি বলেছেন, ‘আপনারা যাকে আটক করেন তাদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে হাজির করুন। ৪-৫ দিন আগে ধরে আটকের পর কাগজ-কলমে দেখাবেন যে ২৪ ঘণ্টা আগে ধরা হয়েছে, এ তামাশা আপনারা করবেন না। এটা বন্ধ করুন।’

আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগ আয়োজিত এক সেমিনারে এ আহ্বান জানান তিনি।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দৌরাত্ম্য অপ্রত্যাশিতভাবে বেড়ে গেছে বলে মন্তব্য করে মিজানুর রহমান বলেছেন, ‘রাষ্ট্র তুমি সংযত হও, জনবান্ধব হও।’ তিনি আরও বলেন, পেট্রোলবোমা কারা ফাটাচ্ছে তাদের আপনারা ধরতে পারেন না। এটা পুলিশের ব্যর্থতা। এদের বের করে আইনের আওতায় আনতে হবে।

মিজানুর রহমান বলেন, রাজনৈতিক সহিংসতা বন্ধে আমরা রাষ্ট্রকে যত ধরনের কঠোর হওয়া দরকার ততো কঠোর হতে বলেছি। কিন্তু তাতে দেখেছি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দৌরাত্ম্য অপ্রত্যাশিতভাবে বেড়ে
গেছে। এর ফলে এদের ওপর আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে। এ অবস্থা থেকে আমাদের পরিত্রাণ পেতে হবে নইলে আরো ভয়াবহতা সৃষ্টি হবে।

নাটক-সিনেমায় পুলিশের পোশাক পরা যাবে না এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে তিনি বলেন, এ সিদ্ধান্ত মুক্ত চিন্তার পথে একটি অন্তরায় সৃষ্টি। রাষ্ট্রের কতটা মাথা খারাপ হলে এমন উদ্ভট সিদ্ধান্ত
নিতে পারে।

সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মোখলেছুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ
বিভাগের প্রাক্তন পরিচালক অধ্যাপক ড. নুরুল ইসলাম, অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জিয়া রহমান এবং ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মো. আলাউদ্দিন প্রমুখ।