চুলে রং করার আগে জানবেন যেসব বিষয়

আজকের দিনে সৌন্দর্য সচেতন নারীদের বেশিরভাগই চুলে রং করে থাকেন। এক্ষেত্রে নারীদের তুলনায় পুরুষরাও কিন্তু খুব একটা পিছিয়ে নেই। চুলে রং করা বর্তমানে ফ্যাশনের একটু অনুসঙ্গ হয়ে দাড়িয়েছে। যারা কয়েকবার চুলে রং করেছেন তাদের কোন সমস্যা হয় না। কিন্তু যারা এবারই প্রথম চুলে রং করতে যাচ্ছেন তারা জেনে নিন কিছু বিষয়। কারণ প্রথমবার চুলে রং করার সময়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ সময় কিছু বিষয় না জানলে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। অনেক সময় চুল পড়ার হারও বেড়ে যেতে পারে। কাজেই প্রত্যেকেরই এ সময় কিছু বিষয় জেনে সতর্ক থাকা উচিত।

চুলে রং করার আগে জানবেন যেসব বিষয়-

এটা এককালীন বিষয় নয়
প্রথমেই জেনে রাখা ভালো যে চুল রং করা এককালীন কোন বিষয় নয়। প্রথমবার চুল রং করার পর তা কিছুদিন পর আবার পরিচর্যা করতে হয়। এর আগেও চুলের যত্ন নিতে হয়। এ সময় চুলের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রসাধনীসহ কিছু ব্যয়ের সংস্থান রাখতে হয়। এর অন্যতম কারণ হলো- চুল রং করার পর কিছুদিন পর তা উজ্জ্বলতা হারাতে শুরু করে। তাই উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে বা ধরে রাখতে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা জরুরী।

পণ্যের দিকে নজর দিন
চুল রং করার জন্য সুপ্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানের তৈরি ভালোমানের পণ্য ব্যবহার করুন। এছাড়া রং করার পর চুল রক্ষণাবেক্ষণের জন্যও ভালো মানের প্রসাধনী বেছে নিন। অন্যথায় নিম্নমানের পণ্য ব্যবহারে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

চুলের স্বাস্থ্য পরিবর্তন
চুল রং করলে এর স্বাস্থ্যে কিছুটা পরিবর্তন দেখা যায়। বিশেষ করে চুল রং করার পর প্রথম কিছুদিন চুল শুকনো ও ভঙ্গুর বলে মনে হয়। এ সময় চুলে কিছুটা জট লাগার প্রবণতাও দেখা যায়। তবে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের প্রবণতা অনেকখানি কমে যায়।

মুখের ওপর প্রভাব
চুলের রং পরিবর্তন করলে মুখের উজ্জ্বলতায় এর প্রভাব পড়তে পারে। গাঢ় কোনো রং ব্যবহার করলে তা মুখের উজ্জ্বলতা আরও বাড়িয়ে দেয়। অন্যদিকে হালকা রং ব্যবহারে মুখের উজ্জ্বলতা কম বলে মনে হবে। এছাড়া চুলের রং পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে ভ্রুর রংকেও সামঞ্জস্যপূর্ণভাবে পরিবর্তন করুন। অন্যথায় বেমানান লাগবে।

রং পরিবর্তনে সতর্কতা
মাঝে মাঝে চুলের রং পরিবর্তন করে নতুনভাবে সাজতে চাইলে কিছু সতর্কতা অবলম্বন করুন। এজন্য প্রথমেই চুল গাঢ় রং না করে হালকা রং করে দেখুন। পরে প্রয়োজনে তা গাঢ় করুন। কিন্তু প্রথমেই যদি গাঢ় রং করে ফেলেন তাহলে হালকা রং করার আগে ব্লিচ করে আগের রং উঠাতে হবে। এতে চুলের ওপর বাড়তি ধকল পড়বে। তাই প্রথমে হালকা রং করুন, পরে প্রয়োজনে গাঢ় রং করুন।

চুলের ইতিহাস
চুল রং করার আগে আপনার স্টাইলিস্টকে চুলের ইতিহাস সম্পর্কে জানান। চুলে ঢেউ থাকলে ভিন্ন ধরনের রং ব্যবহার করুন। এছাড়া কোনো কেমিক্যালে অ্যালার্জি থাকলে তাও স্টাইলিসকে জানান। তাহলে চুল ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে।

মান বজায় রাখুন
চুল রং করার আগে স্টাইলিস্টকে ভালো মানের পণ্যটি ব্যবহার করতে বলুন। যারা বিশ্বস্ততার সঙ্গে ভালোমানের পণ্য ব্যবহার করে যত্নের সঙ্গে এ কাজ করে, তাদের সহায়তা নিন। তাতে চুলের ক্ষতি এড়ানো সম্ভব হবে।

তথ্যসূত্র: ওয়েবসাইট