আ.লীগ ক্ষমতায় এলেই ইসলামের সেবা করে

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার যখনই ক্ষমতায় এসেছে তখনই ইসলামের সেবা করেছে। হজযাত্রীদের সঙ্গে কেউ যেন প্রতারণা করতে না পারে সরকার সে ব্যবস্থা নিয়েছে। কেউ হজ প্রতারণা করলে তাদের কঠোর শাস্তি পেতে হবে।’

বৃহস্পতিবার আশকোনা হজক্যাম্পে হজযাত্রীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় ও হজ কার্যক্রম ২০১৫ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘ইসলাম শান্তির ধর্ম, এখানে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, নারী নির্যাতন, মাদকসহ কোনো অপরাধের স্থান নেই। তারপরও এসব ঘটনা ঘটে। সরকার মানুষকে এসব বিষয়ে সচেতন করার কাজ করছে, বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে।’

সরকার গঠনের পর থেকে হজযাত্রীদের সব সমস্যা সমাধানে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

কাবা শরিফে গিয়ে হাজিদের দেশ, দেশের মানুষ জন্য দোয়া করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘পবিত্র জায়গায় যাচ্ছেন, দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য দোয়া করবেন। আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন আমার হাত দিয়ে দেশের মানুষের কল্যাণ করতে পারি। দোয়া করবেন যে গুরু দায়িত্ব আমি পেয়েছি তা যেন যথাযথভাবে পালন করতে পারি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করতে চাই না। আমরা চাই সবাই স্বাধীনভাবে ধর্ম পালন করবে।’

হজ কার্যক্রম সহজ ও ডিজিটালাইড করার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হজ কার্যক্রম আরও সহজতর করা হবে। রেজিস্ট্রেশন যদি সারা বছরব্যাপী করা যায়, তাহলে যারা হজে যেতে চান, তারা শান্তভাবে ধীরে সুস্থে রেজিষ্ট্রেশন করে রাখতে পারবেন। এই রেজিস্ট্রেশন অনলাইনেও হতে পারে।’

সৌদি সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘সৌদি সরকার হাজিদের জন্য অনেক সুযোগ-সুবিধা করে দিয়েছে।’

ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন- বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সংসদ সদস্য সাহারা খাতুন, বজলুল হক হারুন প্রমুখ।