সাভারে ইফতার নিয়ে আ.লীগে সংঘর্ষ

সাভার আওয়ামী লীগ আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কমপক্ষে দশ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সাভারের সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমান পরিস্থিতি খারাপ দেখে সটকে পড়লেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের ৬৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সাভার পৌর এলাকার ডগরমোড়া মহল্লায় ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ সংঘর্ষ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় নেতাকর্মীরা জানায়, সন্ধ্যায় সাভার পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন সাভারের সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমান। এছাড়াও ছাত্রলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, হকার্সলীগসহ স্থানীয় লোকজনও ইফতারে যোগ দেয়।

তবে ইফতার শুরু হওয়ার পর পরই আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাকর্মী ইফতার না পাওয়ায় ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি হাফিজ উদ্দিন ও সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গির আলমের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এসময় জাহাঙ্গিরের লোকজন ইফতার না পেয়ে অনুষ্ঠানের চেয়ার ও আসবাবপত্রে ব্যাপক ভাঙচুর শুরু করে। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের দশ জন আহত হন।

এসময় বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীদের ভাঙচুর দেখে অনুষ্ঠানে আসা নেতাকর্মী ও স্থানীয়রা যে যার মত দৌড়ে পালিয়ে যায়। তবে হতভম্ব হয়ে পড়েন এমপি ডা. এনাম। তিনি সংঘর্ষ বন্ধ বা থামানোর কোনো উদ্যোগ না নিয়ে তার লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন।

খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন। সংবাদকর্মীরা ছবি তুলতে চাইলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক হাসান তুহিন বাধা দেন।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তবে এ বিষয়ে সাভারের সংসদ সদস্য ডা. এনামুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।