সন্তানকে শেখানোর আগে আপনিও শিখে নিন

সন্তান যখন শিখতে শুরু করে তখন তাদের মস্তিষ্কে আপনি যা দেবেন তাই সত্য তথ্য বলে গ্রহণ করে নেবে। এ সময় তাদের মাথায় সারাক্ষণ প্রশ্ন ঘুরপাক খায়। তাদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে অনেক সময়ই ভুল তথ্য বলে থাকেন বাবা-মায়েরা। প্রযুক্তির এই যুগে সত্য তথ্য পাওয়া খুব সহজ হয়ে গেছে। পরবর্তীতে সন্তান যখন ইন্টারনেটে বসে দেখবে আপনি যে তথ্য দিয়েছিলেন তা ভুল, তখন তার মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হবে। এমন ঘটনা ঘটলে সে পরবর্তীতে আর বাবা-মায়ের দেওয়া তথ্যের ওপর ভরসা রাখবে না।

বিশেষজ্ঞের মতে, এখন এমন এক যুগ এসেছে যে সন্তানের সঙ্গে বাবা-মায়েরও শেখার কাজটি করতে হয়। তাদের বেড়ে ওঠার সঙ্গে আপনার অভিজ্ঞতাকেও ঝালিয়ে নিতে হবে। তারা কি উপায়ে শিখছে এবং কি শিখছে তার প্রতি খেয়াল রাখতে হবে আপনার।

প্রযুক্তির এই যুগে ছেলে-মেয়েরা আগের চেয়ে অনেক স্মার্ট হয়ে গড়ে উঠছে। তাই তাদের অভিভাবক হওয়া সহজ কাজ নয়। তাদের জানার বিষয়ে আপনাকে তাই সাবধান থাকতে হবে। নিজে আগে জেনে তারপর তাকে জানিয়ে দিন।

ছোট ছেলে-মেয়েরা যখন পত্রিকা পড়তে যায়, তখন সবকিছু তাদের কাছে কঠিন মনে হয়। এ সময় তারা নানাভাবে অভিভাবকের কাছে প্রশ্ন রাখে। সেক্ষেত্রে ডিকশনারি দেখে তবে তাকে শব্দের অর্থ বুঝিয়ে দিন। শিশুর শিশুসুলভ বুদ্ধিমত্তাকে খাটো করে দেখে তাকে মনগড়া তথ্য পরিবেশন আপনাকে বড় ধরনের ঝক্কির মধ্যে ফেলতে পারে। তাই আপনি তাকে তাই শেখাবেন, যা আপনি সঠিকভাবে শিখেছেন।
সূত্র : ডিএনএ ইন্ডিয়া