হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে চীনাবাদাম

file-1অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাবার হৃদযন্ত্রের জন্য ক্ষতিকর। তবে চীনাবাদাম হৃদয়ের জন্য উপকারী হতে পারে।

সাম্প্রতিক এক গবেষণার ফলাফল থেকে জানা গেছে অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাবারের পরিবর্তে চীনাবাদাম খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

উচ্চ চর্বিযুক্ত ও কম পুষ্টিকর খাবারে পুষ্টির ঘাটতি কমাতে চীনাবাদাম বেশ উপাদেয়। বস্টনে আয়োজিত আমেরিকান সোসাইটি ফর নিউট্রিশন’স ৭৯তম সায়েন্টেফিক সেশনস অ্যান্ড অ্যানুয়াল মিটিংয়ে গবেষণাটি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

এই গবেষণার প্রধান গবেষক ও যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়া স্টেইট ইউনিভার্সিটির ছাত্র শরান লিউ বলেন, “আগের গবেষণাগুলোতে দেখা গেছে যারা সপ্তাহে দু’বার চীনাবাদাম খেয়ে থাকেন তাদের হৃদরোগ হওয়ার ঝুঁকি কমে।”

“গবেষণায় দেখা গেছে চীনাবাদাম খাওয়ার ফলে এর প্রতিরক্ষামূলক প্রভাব ধমনীর স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।” বলেন লিউ।

উচ্চচর্বিযুক্ত খাবার খাওয়ার পর শরীরে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণের জন্য এই গবেষণা চালানো হয়।

গবেষণার খাতিরে, ‘শেইক’য়ের সঙ্গে চীনাবাদামসহ এবং চীনাবাদাম ছাড়া পানীয় পান করানো হয়। দু’ধরনের খাবারের পরই রক্তে গ্লুকোজ এবং ইনসুলিনের মাত্রা পরিমাপ করা হয়।

গবেষকরা জানান, দেখা গেছে চীনাবাদামসমৃদ্ধ পানীয় খাওয়ার পরও রক্তের স্বাভাবিক সঞ্চালন প্রক্রিয়া বজায় রয়েছে। তবে চীনাবাদাম বিহীন শেইক রক্ত সঞ্চালনে বাধা তৈরি করছে।

অথেরোস্ক্লেরোসিস হওয়ার পেছনে ক্রটিপূর্ণ রক্তসঞ্চালন গুরুত্বপূর্ণ ‍ভূমিকা রাখে। যা ধমনীতে প্লাক ও ক্ষত তৈরি করে। যেখান থেকে ‘করোনারি আর্টারি ডিজিজ’ হওয়ার প্রধান কারণ।

ছবি: রয়টার্স।